সাইবার হামলা হলো টিকা নিবন্ধনের ওয়েবসাইটে

ইতালিতে করোনা টিকা নিবন্ধনের সরকারি ওয়েবসাইটে সাইবার হামলা চালিয়েছে হ্যাকাররা। রাজধানী রোমসহ লাজ্জিও প্রদেশের সকল কোভিড তথ্যের ওপর এমন হামলায় কর্তৃপক্ষ সব ধরনের সেবা বন্ধ করে দিতে বাধ্য হয়। তবে ব্যবহারকারীদের ব্যক্তিগত তথ্য এখনো নিরাপদে আছে বলে জানিয়েছেন এক ঊর্ধ্বতন কর্মকর্তা।

 ইতালির রাজধানী রোমের আশপাশের করোনা টিকা কার্যক্রমের ওয়েবসাইট বিকল হয়ে পড়ে স্থানীয় সময় রোববার (১ আগস্ট) রাতে। এতে করে টিকার নিবন্ধন বন্ধ হয়ে যায় রাজধানীসহ লাজ্জিও প্রদেশজুড়ে। ভোগান্তিতে পড়েন সাধারণ মানুষ। পরে জানা যায়, টিকা কার্যক্রমের ওয়েবসাইটে সাইবার হামলা চালিয়ে এর নিয়ন্ত্রণ নিয়ে নেয় হ্যাকাররা।  আগস্ট থেকে ইতালি সরকার বিভিন্ন গুরুত্বপূর্ণ স্থানে প্রবেশে ‘গ্রিনপাস’ বাধ্যতামূলক করেছে। এ পর্যন্ত প্রায় সাড়ে ৩ কোটি মানুষ ডাউনলোড করেছে এই গ্রিনপাস। এ ছাড়াও ১২ থেকে ১৯ বছরের কিশোর-কিশোরীদের দ্রুত টিকার আওতায় আনতে জোর চেষ্টা চলছে দেশজুড়ে। গ্রিনপাস কার্যক্রম শুরুর ঠিক ৪ দিন আগে, টিকা কার্যক্রমের ওয়েবসাইটে সাইবার হামলার ঘটনায় স্থানীয়দের পাশাপাশি চিন্তিত প্রবাসী বাংলাদেশিরাও। লাজ্জিও প্রদেশের প্রেসিডেন্ট নিকোলা জিঙ্গারেটিও তার ফেসবুক পেজে লিখেছেন, ‘রোববার রাতে ভ্যাকসিন বুকিং পরিচালনা করে ওইসব কম্পিউটার সিস্টেমের বিরুদ্ধে হ্যাকাররা আক্রমণ চালিয়েছে।’ এটি একটি গুরুতর ঘটনা উল্লেখ করে তিনি বলেন, ‘হামলার ফলে গুরুত্বপূর্ণ টিকাদান পরিষেবাকে স্থগিত করে ফেলেছে হ্যাকাররা। পরিষেবাগুলিতে অনিবার্য হামলার জন্য আমরা নাগরিকদের কাছে দুঃখ প্রকাশ করছি।’ বিষয়টি কর্তৃপক্ষকে জানানো হয়েছে বলেও জানান প্রদেশের প্রেসিডেন্ট। একইসঙ্গে সেই সমস্ত কর্মচারীদের ধন্যবাদ জানান, যারা হামলার পরই রাতে কেন্দ্রকে রক্ষা করতে এবং স্বাভাবিক অবস্থায় ফিরে আসার জন্য কাজ করছেন। ইতালিতে এ পর্যন্ত দেশটির ৬০ শতাংশ মানুষ পূর্ণ ভ্যাকসিনের আওতায় এসেছে, কিন্তু লাজ্জিও প্রদেশে এই হার ৬৮ শতাংশ। বেশ কয়েকটি প্রদেশ এখনও তুলনামূলকভাবে পিছিয়ে রয়েছে টিকা কার্যক্রমে। এমন বৈষম্যের প্রতিবাদে এই সাইবার হামলা হয়ে থাকতে পারে বলে ধারণা দেশটির সংবাদমাধ্যমসহ স্থানীয়দের।