টাঙ্গাইলে নৌকার প্রার্থীসহ পরিষদ ভবনে হামলা

টাঙ্গাইলের ঘাটাইলে ইউপি নির্বাচনকে কেন্দ্র করে হামলা, দোকানপাট ও ইউনিয়ন পরিষদ ভবনে ভাংচুর ও অগ্নিসংযোগের ঘটনা ঘটেছে। হামলায় গ্রাম পুলিশ সদস্যসহ বেশ কয়েকজন আহত হয়েছেন।

বৃহস্পতিবার (২৩ ডিসেম্বর) দুপুরে উপজেলার পাচটিকড়ির এলাকার লোকেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের সামনে এ ঘটনা ঘটে। লোকেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের গ্রাম পুলিশ ফজল হক বলেন, নৌকার প্রার্থী ও বর্তমান চেয়ারম্যান মোহাম্মদ শরিফ হোসেনসহ কয়েকজন পরিষদের সামনে বসে ছিলেন। এ সময় আনারস প্রতীকের স্বতন্ত্র প্রার্থীর সমর্থকরা মিছিল ও লাঠি সোটা নিয়ে যাচ্ছিল। হঠাৎ করেই মিছিলে থাকা লোকজন চেয়ারম্যান ও পরিষদে হামলা চালায়। এছাড়া পাশের বেশ কিছু দোকানপাটে ভাংচুর চালায়। এ সময় পরিষদের সামনে থাকা মোটরসাইকেলে আগুন ধরিয়ে দেয়া হয়। তাদের বাধা দিলে গ্রাম পুলিশ সদস্যদের উপর হামলা এবং ইটপাটকেল ছুড়তে থাকে। এতে গ্রাম পুলিশ ফারুক আহত হয়েছেন। হামলায় আহত গ্রাম পুলিশ সদস্য ফারুক জানায়, পরিষদে হামলা ঠেকাতে গিয়ে আহত হয়েছি। লোকেরপাড়া ইউনিয়ন পরিষদের চেয়ারম্যান ও নৌকার প্রার্থী মোহাম্মদ শরিফ হোসেন বলেন, স্বতন্ত্র প্রার্থী শহিদুল হক মিলনের লোকজন লাঠিসোটা নিয়ে মিছিল করে পরিষদে হামলা করে। এতে গ্রাম পুলিশসহ কয়েকজন আহত হয়েছে। এছাড়া একটি মোটরসাইকেল পুড়িয়ে দেয়াসহ দুইটি সাইকেল ভাংচুর করেছে। এঘটনায় বারবার ফোন করলেও থানা পুলিশ ফোন রিসিভ করেননি। ঘাটাইল থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি ) আজহারুল ইসলাম সরকারের মোবাইলে বারবার যোগাযোগ করা হলেও তিনি ফোন রিসিভ করেননি।

Related Posts