ঝুঁকিপূর্ণ এক উপজেলায় ৪৮টি কেন্দ্রই

ঝুঁকিপূর্ণ এক উপজেলায় ৪৮টি কেন্দ্রই

বাগেরহাটের মোংলা উপজেলায় রাত পোহালেই অনুষ্ঠিত হবে ভোট। ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদ নির্বাচনের তৃতীয় ধাপে গত ২৯ মে ভোটগ্রহণের কথা থাকলেও ঘূর্ণিঝড় রিমালের কারণে নির্বাচন কমিশন (ইসি) উপকূলের কয়েকটি উপজেলার সঙ্গে মোংলার নির্বাচনও স্থগিত করে। পরে ৯ জুন এ নির্বাচন অনুষ্ঠানের তারিখ ঘোষণা করা হয়।

এদিকে এই নির্বাচনকে ঘিরে মোংলা উপজেলার ৪৮টি কেন্দ্রের সবকটিই ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করা হয়েছে। তাই ৪৮টি কেন্দ্রকে অধিক গুরুত্ব দিয়ে সতর্ক রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী। এরই মধ্যে শনিবার (৮ জুন) দুপুর ১২টার পর থেকে কেন্দ্রে কেন্দ্রে ব্যালটসহ নির্বাচনি সরঞ্জাম পাঠানো হয়েছে।

মোংলা উপজেলা নির্বাচনের সহকারী রিটার্নিং কর্মকর্তা ও নির্বাচন কর্মকর্তা আব্দুল্লাহ আল মামুন বলেন, ‘ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদের তৃতীয় ধাপের নির্বাচন হওয়ার কথা ছিল গত ২৯ মে। ঝড়ের কারণে তা পিছিয়ে রবিবার (৯ জুন) করার সিদ্ধান্ত হয়। এটিই হবে ষষ্ঠ উপজেলা পরিষদের শেষ নির্বাচন। এদিকে মোংলা উপজেলার নির্বাচনকে সুষ্ঠু করতে সব রকম প্রস্তুতি নিয়েছে উপজেলা নির্বাচন অফিসসহ সংশ্লিষ্ট আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।’

এই উপজেলার একটি পৌরসভা ও ছয়টি ইউনিয়নে ৪৮টি কেন্দ্রই ঝুঁকিপূর্ণ হিসেবে চিহ্নিত করে সবকটিকেই অধিক গুরুত্ব দিচ্ছে নিরাপত্তা বাহিনী। বিশৃঙ্খলা এড়াতে এখানে পুলিশ, র‍্যাব, কোস্টগার্ড, বিজিবি ও আনসার বাহিনীর পাশাপাশি ছয় জন নির্বাহী ও একজন জুডিশিয়াল ম্যাজিস্ট্রেট দায়িত্বে থাকবেন। ভোটারদের কাছে ভোট সহজ করতে এই নির্বাচনে ৪৮ জন প্রিসাইডিং, ২৬০ জন সহকারী প্রিসাইডিং এবং ৫২০ জন পোলিং অফিসার দায়িত্ব পালন করবেন।

মোংলা উপজেলা পরিষদের নির্বাচনে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৪, ভাইস চেয়ারম্যান ৭ এবং নারী ভাইস চেয়ারম্যান ৩ জন ভোটের মাঠে লড়ছেন। এখানে এক লাখ ২০ হাজার ৪৬৫ জন ভোটারের মধ্যে পুরুষ ৬০ হাজার ৪৭৭, নারী ৫৯ হাজার ৯৮৫ এবং ৩ জন হিজড়া ভোটার তাদের ভোটাধিকার প্রয়োগ করবেন।

জানা গেছে, এখানে সমুদ্রবন্দর, ইপিজেড, শিল্পাঞ্চল, সুন্দরবনের অবস্থান থাকার কারণে অন্য সব উপজেলার চেয়ে মোংলা উপজেলার বিশেষ একটি অবস্থান রয়েছে। এ কারণে এখানকার উপজেলা চেয়ারম্যান পদ বিশেষ একটি গুরুত্ব বহন করে। মোংলা উপজেলা চেয়ারম্যান পদে বিজয়ী হতে প্রার্থীরা মরিয়া হয়ে আছেন।