চতুর্থ ধাপের ভোট তীব্র গরমে চলছে লোকসভা নির্বাচনের

ভারতের লোকসভা নির্বাচনের চতুর্থ ধাপের ভোট গ্রহণ চলছে।  সোমবার (১৩ মে) স্থানীয় সময় সকাল সাতটায় কড়া নিরাপত্তার মধ্য দিয়ে শুরু হয় ভোট গ্রহণ। চলবে সন্ধ্যা ছয়টা পর্যন্ত। এ পর্যায়ে ১০টি রাজ্য এবং ১টি কেন্দ্রশাসিত অঞ্চলের মোট ৯৬ আসনে ভোট গ্রহণ চলছে। ব্রিটিশ বার্তা সংস্থা রয়টার্স এ খবর জানিয়েছে।

চতুর্থ দফায় ভোট চলছে অন্ধ্র প্রদেশের ২৫টি, বিহারের ৫টি, জম্মু-কাশ্মীরের ১টি, ঝাড়খন্ড ও ওডিশার ৪টি করে এবং মধ্যপ্রদেশ ও পশ্চিমবঙ্গের ৮টি করে আসনে। এ ছাড়া তেলেঙ্গানার ১৭, মহারাষ্ট্রের ১১ এবং উত্তর প্রদেশের ১৩ আসনেও ভোট চলছে।

তবে এই পর্যায়ে লোকসভা নির্বাচনের সঙ্গে সঙ্গে দক্ষিণ ভারতের অন্ধ্র প্রদেশের ১৭৫ আসন এবং পূর্ব ভারতের ওডিশা রাজ্যের ২৮ বিধানসভা আসনেও ভোট চলছে।

তীব্র গরম উপেক্ষা করে সকাল থেকেই কেন্দ্রগুলোতে হাজির ভোটাররা। মোট ১৭ কোটি ৭০ লাখ ভোটারের মধ্যে এই পর্যায়ে পুরুষ ভোটারের সংখ্যা ৮ কোটি ৯৭ লাখ এবং নারী ভোটার ৮ কোটি ৭৩ লাখ। কিন্তু তারপরও আশানুরূপ হচ্ছে না ভোটদানের হার। সকালে উপস্থিতি বাড়লেও, বেলা গড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার উপস্থিতি কমছে।

যেসব কেন্দ্রে ভোট চলছে, তার বেশিরভাগ এলাকাতেই তাপমাত্রা ৪০ ডিগ্রি বা তার চেয়ে বেশি। তীব্র রোদ তো আছেই।  চতুর্থ দফায় তাই সকাল ৯টা পর্যন্ত ভোটদানের হার ১০.৩৫ শতাংশ।

ভোট গ্রহণের জন্য গোটা দেশে ১ লাখ ৯২ হাজার ভোটগ্রহণ কেন্দ্র খোলা হয়েছে। এই দফায় মোট ১৭১৭ জন প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এই দফায় দেশজুড়ে একাধিক হেভিওয়েট প্রার্থীদের মধ্যে রয়েছেন সমাজবাদী পার্টির সভাপতি অখিলেশ যাদব। তিনি লড়বেন উত্তরপ্রদেশের কনৌজ আসন থেকে। তার প্রধান প্রতিপক্ষ বিজেপির সুব্রত পাঠক।

পশ্চিমবঙ্গের বহরমপুর কেন্দ্র থেকে সাবেক কেন্দ্রীয় মন্ত্রী কংগ্রেস প্রার্থী অধীর রঞ্জন চৌধুরী। ওই কেন্দ্রেই তৃণমূল কংগ্রেস প্রার্থী সাবেক ক্রিকেটার ইউসুফ পাঠান। আসানসোল থেকে তৃণমূলের প্রার্থী অভিনেতা শত্রুঘ্ন সিনহা। এখানে বিজেপি প্রার্থী করেছে সুরেন্দ্র সিং আলুওয়ালিয়াকে।

বীরভূম কেন্দ্রে তৃণমূল প্রার্থী অভিনেত্রী শতাব্দী রায়। এবার তিনি কঠিন লড়াইয়ের মুখোমুখি হয়েছেন বিজেপির দেবতনু ভট্টাচার্যের সঙ্গে।  কৃষ্ণনগর আসনে লড়ছেন তৃণমূলের সাবেক সংসদ সদস্য মহুয়া মৈত্র। তার প্রতিদ্বন্দ্বী কংগ্রেস-বাম দল সিপিএমের এস এম সাদি ও বিজেপির অমৃতা রায়।

বর্ধমান-দুর্গাপুর কেন্দ্রে তৃণমূলের হয়ে ভোটে লড়ছেন সাবেক ভারতীয় ক্রিকেটার কীর্তি আজাদ। এই আসনে কীর্তির প্রতিদ্বন্দ্বী বিজেপির শক্তিশালী প্রার্থী ও বিদায়ী সংসদ সদস্য দিলীপ ঘোষ।

৭ দফার লোকসভা নির্বাচনের পঞ্চম দফার ভোট হবে ২০ মে। ষষ্ঠ ও সপ্তম দফার ভোট হবে যথাক্রমে ২৫ মে ও ১ জুন। আর একযোগে ফল প্রকাশ হবে আগামী ৪ জুন।