গতকাল অ্যাঙ্গার্সকে ২-০ গোলে হারিয়েছে পিএসজি

গতকাল অ্যাঙ্গার্সকে ২-০ গোলে হারিয়েছে পিএসজি
মাঠে ফিরেই মেসির গোল, জয় পেল পিএসজিআর্জেন্টাইন তারকা লিওনেল মেসির দলে থাকাটা যে কতটা আত্মবিশ্বাসের সেটি প্রমাণ হলো আরও একবার। দলের অন্যতম সেরা তারকা কিলিয়ান এমবাপ্পে আছেন ছুটিতে। আমেরিকায় তাকে সঙ্গ দিচ্ছেন দলের আরেক তারকা আশরাফ হাকিমি। এমন অবস্থায় ঘরের মাঠে গতকাল অ্যাঙ্গার্সকে ২-০ গোলে হারিয়েছে পিএসজি।
তিন সপ্তাহের বেশি সময়ের বিরতির কোনো ছাপ পড়ল না লিওনেল মেসির খেলায়। বিশ্বকাপ ফাইনালের পর প্রথমবার মাঠে নেমে ঝলক দেখালেন আর্জেন্টাইন এ তারকা। পায়ের কারিকুরি দেখালেন নিষেধাজ্ঞা কাটিয়ে ফেরা নেইমারও। আর এই জয়ে ১৮ ম্যাচে ৪৭ পয়েন্ট নিয়ে লিগ ওয়ানে শীর্ষস্থান আরেকটু পাকাপোক্ত করল পিএসজি।
ম্যাচের আগে ওয়ার্মআপে কাল মেসি ছিলেন বেশ সাধারণ। আর্জেন্টিনার বিশ্বকাপজয়ী দলের বাকি সব সদস্য নিজের প্রথম ক্লাব ম্যাচের আগে যেখানে মেডেল দেখিয়েছেন, মেসি সেখানে ‘অমর পেলে’ লেখা সাদা একটি টিশার্ট পরে এসেছিলেন। একই টিশার্ট পরেন ব্রাজিলিয়ান ফরোয়ার্ড নেইমারও। ম্যাচও শুরু হয় প্রয়াত পেলের প্রতি শ্রদ্ধা জানিয়ে ১ মিনিট করতালির মধ্য দিয়ে।
প্রথম ভালো আক্রমণেই পঞ্চম মিনিটে এগিয়ে যায় পিএসজি। মেসির কাছ থেকে বল পেয়ে মুকিয়েলে নিচু ক্রসে খুঁজে নেন একিতিকেকে। এর পর বাকি কাজটা নিজেই সারেন তিনি। ২৪তম মিনিটে মেসির চমৎকার ফ্রি কিকে সার্জিও রামোসের হেড কোনোমতে ফেরান প্রতিপক্ষ গোলরক্ষক। দুই মিনিট পর আর্জেন্টাইন মহাতারকার আরেকটি ফ্রি কিক ফিস্ট করে ব্যর্থ করে দেন তিনি। ৩৩তম মিনিটে মেসির আরও একটি শট ফিরিয়ে দেন এই গোলরক্ষক। ১-০ গোলে এগিয়ে থেকে বিরতিতে যায় পিএসজি।  দ্বিতীয়ার্ধের শুরুতে বেশ আক্রমণাত্মক ফুটবল খেলে অ্যাঙ্গার্স। তবে একাধিক সুযোগ পেয়েও কাজ লাগাতে পারেনি দলটি। ৬০তম মিনিটে বিপজ্জনক জায়গা থেকে শট লক্ষ্যে রাখতে পারেননি আব্দাল্লা সিমা। ৭২তম মিনিটে মুকিয়েলের কাছ থেকে বল পেয়ে জাল খুঁজে নেন মেসি। শুরুতে লাইন্সম্যান অফসাইড দিলেও পরে গোলের পক্ষে বাঁশি বাজান রেফারি। ৮৩তম মিনিটে মেসির দুর্দান্ত কারিকুরির পর বল জালে পাঠান নেইমার। তবে তিনি অফসাইডে থাকায় মেলেনি গোল। ৯০তম মিনিটে তার ফ্রি কিক কর্নারের বিনিময়ে ফেরান গোলরক্ষক। ২-০ গোলের জয় নিয়ে মাঠ ছাড়ে পিএসজি।
লিগ ওয়ানে নিজেদের শেষ ম্যাচে লেসের কাছে ৩-১ গোলে হেরেছিল পিএসজি। এর পর লিগে প্রায় ৯ দিনের বিরতি ছিল ডিফেন্ডিং চ্যাম্পিয়নদের। এই সময়ের মধ্যেই দলের সঙ্গে যোগ দিয়েছেন লিওনেল মেসি। তাই ঠিক পরের ম্যাচেই চেহারা বদলে গেল লিগ ওয়ান চ্যাম্পিয়নদের