কিয়েভের সেনাঘাঁটিতে হামলা রাশিয়ার

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভের একটি সেনাঘাঁটিতে রাশিয়া হামলা শুরু করেছে বলে জানিয়েছেন দেশটির প্রেসিডেন্ট জেলেনস্কি।

ইউক্রেনের এক সেনা কর্মকর্তা শনিবার ভোরে এক ফেসবুক স্ট্যাটাসে কিয়েভে রুশ হামলার কথা জানান।
রাজধানীর পেরেমহি অ্যাভিনিউয়ে অবস্থিত ইউক্রেনের এ সেনাঘাঁটিতে শুক্রবার মধ্যরাত থেকে তুমুল যুদ্ধ চলছে রুশ বাহিনীর সঙ্গে।

রাশিয়ার মুহুর্মুহু বিমান হামলায় কেঁপে উঠছে রাজধানী কিয়েভ। ইউক্রেনের সেনারা বুক চিতিয়ে লড়াই করে যাচ্ছেন রুশ বাহিনীর বিরুদ্ধে। কিয়েভের মেয়র সাবেক হেভিওয়েট চ্যাম্পিয়ন বক্সার ভিটালি ক্লিসকো সামনে কঠিন সময় অপেক্ষা করছে বলে সতর্ক করেছেন নগরবাসীকে। এদিকে পুতিন ইউক্রেনের সেনাসদস্যদের আত্মসমর্পণের আহ্বান জানিয়েছেন এবং দেশটির শাসককে ক্ষমতাচ্যুত করতে বলেছেন।   কিন্তু ইউক্রেনের সেনাবাহিনী লড়াই করে মরতে প্রস্তুত, কিন্তু দেশের বা দেশের নেতৃবৃন্দের বিরুদ্ধে তারা কখনও দাঁড়াবেন না বলে জানিয়েছেন। রুশ প্রতিরক্ষা মন্ত্রণালয় বলছে, তাদের সেনাবাহিনী কিয়েভের কাছে কিয়েভ হস্তমেল বিমানঘাঁটির নিয়ন্ত্রণ গ্রহণ করেছে। তারা দাবি করছে, ইউক্রেন বিশেষ বাহিনীর ২০০ সৈন্য নিহত হয়েছে এবং রাশিয়ার পক্ষে কেউ হতাহত হয়নি। ইউক্রেন সামরিক যান কিয়েভে চারপাশ থেকে ঢোকা রুশ সৈন্যদের প্রতিহত করতে শহরে ঢুকেছে। ইউক্রেনের স্বরাষ্ট্র মন্ত্রণালয় বলছে, স্বেচ্ছাসেবী যোদ্ধাদের ১৮ হাজার বন্দুক দেওয়া হয়েছে এবং তাদের ককটেল বোমা বানানোর পদ্ধতি বুঝিয়ে দেওয়া হয়েছে।

খবর: বিবিসি

Related Posts