চাঁদপুরের কিশোরী ধর্ষণ মামলায় গ্রেফতার ইমাম

চাঁদপুরের মতলব উত্তর উপজেলায় বিয়ের প্রলোভনে কিশোরী ধর্ষণ মামলায় মাহবুব আলম (২৮) নামের এক ইমামকে গ্রেফতার করেছে পুলিশ। ধর্ষণের বিষয়টি জানাজানি হওয়ার পর আত্মগোপন করেন তিনি।

বুধবার (৬ এপ্রিল) বিকেলে আদালতের মাধ্যমে তাকে জেলা কারাগারে পাঠানো হয়। গ্রেফতার মাহবুব আলম মুন্সিগঞ্জের হোগলাকান্দি গ্রামের আমির হোসেন মোল্লার ছেলে। তিনি দীর্ঘদিন মতলব উত্তর উপজেলার সানকিভাঙ্গা গ্রামের সানকিভাঙ্গা বায়তুল আমান জামে মসজিদের ইমাম হিসেবে চাকরি করতেন। মামলা সূত্রে জানা যায়, বিয়ের প্রলোভন দেখিয়ে সাত মাস ধরে ওই কিশোরীকে ধর্ষণ করে আসছিলেন ইমাম মাহবুব আলম। এতে ওই কিশোরী সাত মাসের অন্তঃসত্ত্বা হয়ে পড়ে। কিশোরীর শারীরিক পরিবর্তন দেখা দিলে প্রথমে বিষয়টি ওই ধর্ষিতার মায়ের নজরে আসে। পরে তিনি কিশোরীর কাছে জানতে চাইলে সে ইমাম মাহবুব আলমের কথা জানান। বিষয়টি গত ২৯ মার্চ জানাজানি হলে স্থানীয় লোকজনের মাধ্যমে সমাধানের চেষ্টা করা হয়েছিল। কোনো সমাধান না হওয়ায় অভিযুক্ত ইমাম গা ঢাকা দেন। ৩১ মার্চ কিশোরীর মা বাদী হয়ে মতলব উত্তর থানায় নারী ও শিশু নির্যাতন দমন আইনে মামলা করেন। বুধবার দুপুরে অভিযুক্ত মাহবুব আলমকে উপজেলার কাশীপুর বাজার এলাকা থেকে গ্রেফতার করে পুলিশ।মতলব উত্তর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মুহাম্মদ শাহজাহান কামাল বলেন, আসামিকে আদালতে সোপর্দ করা হয়েছে।

Related Posts