কাবুলে অনাহারে ৮ শিশুর মৃত্যু

কাবুলে অনাহারে ৮ শিশুর মৃত্যু

আফগানিস্তানের রাজধানী কাবুলের পশ্চিমাঞ্চলে ক্ষুধার কারণে ৮ শিশুর মৃত্যু হয়েছে। রাশিয়ার বার্তাসংস্থা স্পুটনিকের বরাত দিয়ে সোমবার এক প্রতিবেদনে এ তথ্য জানিয়েছে ভারতের সংবাদমাধ্যম এনডিটিভি।

৮ শিশুর মৃত্যুর সংবাদ স্পুটনিককে নিশ্চিত করেছেন কাবুলের সাবেক একজন আইন প্রণেতা হাজি মোহাম্মদ  মোহাকেক। তিনি জানান, কাবুলের পশ্চিামাঞ্চল দেশটির সংখ্যালঘু শিয়া মতাবলম্বী হাজারা সম্প্রদায় অধ্যুষিত। যে শিশুরা মারা গেছে, তারা সবাই হাজারা সম্প্রদায়ের স্পুটনিককে মোহাকেক বলেন, ‘তালেবান দেশের ক্ষমতা দখল করার পর দেশটির জনগণের জীবনমান পড়ে গেছে, দারিদ্র্য ও অভাব বেড়েছে; তবে সবচেয়ে বেশি কষ্টে আছে দেশের সংখ্যালঘুরা।’ গত ১৫ আগস্ট আফগানিস্তানের জাতীয় ক্ষমতা দখল করে তালেবানগোষ্ঠী, গঠন করে নুতন সরকার। তবে সেই সরকারকে এখনও স্বীকৃতি দেয়নি বিশ্বের অধিকাংশ দেশ। তালেবান বাহিনী যুক্তরাষ্ট্রে নিষিদ্ধ ঘোষিত সংগঠন হওয়ায় দেশটির কেন্দ্রীয় ব্যাংক ফেডারেল রিজার্ভে আফগানিস্তানের যে অর্থ জমা ছিল, সরকার পরিবর্তন হওয়ায় তা ফ্রিজ হয়ে যায়। পাশাপাশি, আন্তর্জাতিক দাতা সংস্থা ও দেশসমূহ আর্থিক সহায়তা স্থগিত করায় প্রায় পঙ্গু অবস্থায় পৌঁছেছে ব্যাপকভাবে বিদেশী সাহায্য নির্ভর আফগান অর্থনীতি। চলতি অক্টোবরের প্রথমদিকে জাতিসংঘের মহাসচিব আন্তোনিও গুতেরেস জানিয়েছিলেন, আফগানিস্তান বর্তমানে ধ্বংসের শেষ সীমায় অবস্থান করছে। তিনি আরও বলেছিলেন, ‘আমরা যদি এই চরম দুর্যোগে আফগান জনগণকে সহায়তা না করি, কিংবা করতে বিলম্ব করি, তাহলে অদূর ভবিষ্যতে এ কারণে শুধু তাদের নয়, গোটা বিশ্বকেই চড়া মূল্য দিতে হবে।’

অনলাইন ডেস্ক