কাউন্টিতে খেলছেন সাকিব মাহমুদ

জনপ্রিয় ফ্র্যাঞ্চাইজি লিগ আইপিএলে খেলার প্রস্তাব পেয়েও যাননি ইংল্যান্ডের পেসার সাকিব মাহমুদ। লক্ষ্য ছিল কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপে খেলে টেস্ট ক্যারিয়ারে উন্নতি করার। কাউন্টির চলতি মৌসুমে ল্যাঙ্কাশায়ারের হয়ে প্রথম ম্যাচে খেলতে না পারলেও আসছে ম্যাচে তার খেলার আভাস পাওয়া গেছে। এছাড়া এভেইলেবল আছে জেমস অ্যান্ডারসনও।

ক্রিকইনফোর বরাতে জানা গেছে, গ্লুকেস্ট্রাশায়ারের বিপক্ষে ল্যাঙ্কাশায়ারের ম্যাচটিকে সামনে রেখে এরই মধ্যে দুই পেসার অনুশীলনও শুরু করে দিয়েছেন। এর আগে এবারের চ্যাম্পিয়নশীপের প্রথম ম্যাচে কেন্টের বিপক্ষে জয় পেয়েছে ল্যাঙ্কাশায়ার।

এদিকে, ইন্ডিয়ান প্রিমিয়ার লিগের এবারের আসরে নিলামের আগেই টুর্নামেন্ট থেকে নাম উঠিয়ে নিয়েছিলেন ইংল্যান্ডের তারকা অলরাউন্ডার বেন স্টোকস। তার জাতীয় দলের সতীর্থ সাকিব মাহমুদও তার মতোই আইপিএলকে না করে দেন।

ক্রিকইনফোর খবর, ইংল্যান্ডের ওয়েস্ট ইন্ডিজ সফরে আইপিএলের একটি দল সাকিবকে খেলার প্রস্তাব দিয়েছিল- এমন দাবি করেছেন ২৫ বছর বয়সী তারকা। কিন্তু বেন স্টোকসের পরামর্শে সেই প্রস্তাব ফিরিয়ে দেন তিনি। এ সম্পর্কে সাকিব বলেন, ‘আমি আইপিএলের প্রস্তাব ফিরিয়ে দিয়েছি যাতে কাউন্টিতে খেলতে পারি। আমি চাই লাল বলের ক্রিকেটে নিজের স্কিল বাড়ুক।’

তিনি যোগ করেন, ‘ক্যারিবিয়ান সফরে থাকার সময় আমি প্রস্তাবটি পাই। আমার আশপাশে থাকা কয়েকজনের সঙ্গে এ বিষয়ে কথা বলি। তখন বুঝতে পারি এই মুহূর্তে আমার উচিত লাল বলের ক্রিকেটে মনোযোগ দেওয়া। সিদ্ধান্তটি আমারই ছিল। তবে মজার বিষয় হলো একদিন সকালে স্টোকসের সঙ্গে খাবার টেবিলে এ বিষয়ে কথা হচ্ছিল। আমি তাকে জিজ্ঞেস করলাম কেনো আইপিএলকে না করে দিয়েছে? সে জানালো টেস্ট ক্রিকেটকে এগিয়ে রাখতে চায় এবং দলের সঙ্গেই থাকতে চায়।’

এরপর সাকিব যোগ করেন, ‘ঠিক সেদিনই ফোনে আমার কাছে আইপিএলে খেলার প্রস্তাবটি আসে। আমারও স্টোকসের কথা মনে হলো আর তার মতোই না করে দিলাম। আমাকে সাদা জার্সির ক্রিকেটে সফল হতে হবে। ক্যারিবীয়দের বিপক্ষে সাদা জার্সিতে খেলা আমার অনেক ভালো লেগেছে। মূলত টেস্টের চেয়ে কোনো ক্রিকেটই গুরুত্বপূর্ণ নয়।’ ছিল কাউন্টি চ্যাম্পিয়নশীপে খেলে টেস্ট ক্যারিয়ারে উন্নতি করার। কাউন্টির চলতি মৌসুমে ল্যাঙ্কাশায়ারের হয়ে প্রথম ম্যাচে খেলতে না পারলেও আসছে ম্যাচে তার খেলার আভাস পাওয়া গেছে। এছাড়া এভেইলেবল আছে জেমস অ্যান্ডারসনও।

Related Posts