কনমেবল অঞ্চল প্রাক-বাছাইপর্ব ব্রাজিলের পর চূড়ান্তপর্বে আর্জেন্টিনা

কনমেবল অঞ্চল প্রাক-বাছাইপর্ব ব্রাজিলের পর চূড়ান্তপর্বে আর্জেন্টিনা

ইকুয়েডরকে ২-১ গোলে হারিয়ে প্যারিস অলিম্পিক বাছাইয়ের চূড়ান্তপর্ব নিশ্চিত করেছে ব্রাজিল অনূর্ধ্ব-২৩ ফুটবল দল। চিরপ্রতিদ্বন্দ্বীদের পর এবার বিশ্বের সবচেয়ে বড় ক্রীড়া টুর্নামেন্টের চূড়ান্ত বাছাইপর্বে পা রেখেছে আর্জেন্টিনা।

বুধবার (৩১ জানুয়ারি) ভোরে অলিম্পিকের প্রাক-বাছাইয়ে চিলি অনূর্ধ্ব-২৩ ফুটবল দলকে ৫-০ গোলে বিধ্বস্ত করেছে আর্জেন্টিনা। বিশাল জয়ে অলিম্পিকের বাছাইপর্বে জায়গাও নিশ্চিত করেছে ক্লদিও এচেভেরি-থিয়াগো আলমাদারা।

কনমেবল অঞ্চলের প্রাক-বাছাইপর্বের লড়াইয়ে প্রথম ম্যাচে প্যারাগুয়ের বিপক্ষে ড্র করে ধাক্কা খেয়েছিল আর্জেন্টিনা। পরপর দুই ম্যাচে পেরু ও চিলি অনূর্ধ্ব-২৩ দলকে হারিয়ে কক্ষপথে ফিরিছে আলবিসেলেস্তেরা। দলের এমন দাপুটে পারফরম্যান্সে অলিম্পিকের বাছাইপর্বে জায়গা নিশ্চিত করেছে হ্যাভিয়ের মাশ্চারানোর শিষ্যরা।

গ্রুপপর্বের ম্যাচে চিলিকে উড়িয়ে দিয়েছে আর্জেন্টিনার অনূর্ধ্ব-২৩ দল। অলিম্পিকের বাছাইপর্ব নিশ্চিত করতে দুদলের জন্যই ম্যাচটি ছিল সমান গুরুত্বপূর্ণ। তবে এমন ম্যাচে আলবিসেলেস্তে যুবাদের সামনে দাঁড়াতেই পারেনি চিলি। অধিনায়ক থিয়াগো আলমাদা জোড়া গোলের পাশাপাশি অ্যাসিস্ট করেন আরও ১ গোলে। প্রথমার্ধে দলকে আর্জেন্টিনাকে এগিয়ে নেন আলমাদা।

দ্বিতীয়ার্ধে চিলির জালে আরও চার গোল দেয় আর্জেন্টিনা। ম্যাচের ৫৭ মিনিটে স্পটকিক থেকে নিজের ও দলের দ্বিতীয় গোলটি করেন আলমাদা। দলের তৃতীয় গোলে তার অ্যাসিস্টে লক্ষ্যভেদ করেন সান্তিয়াগো ক্যাস্ট্রো। ৭৯ মিনিটে চিলিকে ১ হালি গোল হজম করান ফাকুন্দো কুইরোজ। শ্যাচের অতিরিক্ত সময়ে প্রতিপক্ষের পিঠে শেষ পেরেকটি ঠুকে দেন লুসিয়ানো গুন্দো। আর এ গোলে অলিম্পিক বাছাইপর্বের টিকিট কাটে আর্জেন্টিনাকে।

এই জয়ে ৭ পয়েন্ট নিয়ে চূড়ান্তপর্ব নিশ্চিত করেছে আর্জেন্টিনা অনূর্ধ্ব-১৯ দল। কনমেবল বাছাইয়ে আরও ৩টি ম্যাচ খেলবে আলবিসেলেস্তেরা। তারপরই প্যারিস অলিম্পিকের মূলপর্বের টিকিট পাবে হ্যাভিয়ের শিষ্যরা।