এমপি কাজী নাবিল আহমেদ যশোর সদর উপজেলা নির্বাচনে ভোট দিলেন

এমপি কাজী নাবিল আহমেদ যশোর সদর উপজেলা নির্বাচনে ভোট দিলেন

যশোর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে ভোট দিয়েছেন যশোর-৩ (সদর) আসনের সংসদ সদস্য (এমপি) কাজী নাবিল আহমেদ। বুধবার (৫ জুন) বেলা পৌনে ১২টায় সেবাসংঘ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ের পুরুষ কেন্দ্রে ভোট দেন তিনি। পরে সংশ্লিষ্টদের কাছে ভোটের সার্বিক পরিস্থিতির খোঁজখবর নেন এমপি কাজী নাবিল আহমেদ।

সেবাসংঘ উচ্চ বালিকা বিদ্যালয়ে ভোটকেন্দ্র দুটি। পুরুষ কেন্দ্রে মোট ভোটার ৩ হাজার ২৯৪ জন। এর মধ্যে বেলা ১০টা পর্যন্ত ২৬৩টি ভোট পড়েছে বলে জানিয়েছেন প্রিসাইডিং কর্মকর্তা মুজিবুর রহমান। আর মহিলা কেন্দ্রে ৩ হাজার ৪০৪টি ভোটের মধ্যে ১০টা পর্যন্ত ২২৫টি ভোট পড়েছে বলে জানান প্রিসাইডিং কর্মকর্তা সমিরণ কান্তি দাস।

দুই প্রিসাইডিং কর্মকর্তা জানান, ভোটের সার্বিক পরিস্থিতি ভালো। বেলা বাড়ার সঙ্গে সঙ্গে ভোটার উপস্থিতিও বাড়ছে। কোথাও কোনও অপ্রীতিকর ঘটনা ঘটেনি।

যশোর সদর উপজেলা পরিষদ নির্বাচনে চেয়ারম্যান ও ভাইস চেয়ারম্যান পদে ১৬ প্রার্থী প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন। এর মধ্যে চেয়ারম্যান প্রার্থী ৮, ভাইস চেয়ারম্যান প্রার্থী ৫ ও মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন ৩ জন।

এ উপজেলায় এবার মোট ২১৯টি ভোটকেন্দ্রে ১ হাজার ৭৫৬ কক্ষে ভোটগ্রহণ হবে। এতে দায়িত্ব পালন করবেন ২১৯ জন প্রিসাইডিং অফিসার, ১ হাজার ৭৫৬ জন সহকারী প্রিসাইডিং অফিসার ও ৩ হাজার ৫১২ জন পোলিং অফিসার।

পরে সংশ্লিষ্টদের কাছে ভোটের সার্বিক পরিস্থিতির খোঁজখবর নেন এমপি কাজী নাবিল আহমেদ

সদর উপজেলায় মোট ভোটার ৬ লাখ ৭ হাজার ৭৪২ জন। এর মধ্যে পুরুষ ৩ লাখ ৪ হাজার ৭৩০, নারী ৩ লাখ ৩ হাজার ৫২ ও হিজড়া ভোটার ৭ জন।

চেয়ারম্যান পদে বর্তমান চেয়ারম্যান মোস্তফা ফরিদ আহমেদ চৌধুরী (আনারস), তৌহিদ চাকলাদার ফন্টু (মোটরসাইকেল), ফাতেমা আনোয়ার (ঘোড়া), আনোয়ার হোসেন বিপুল (দোয়াত কলম), মোহিত কুমার নাথ (শালিক), শাহারুল ইসলাম (জোড়া ফুল), শফিকুল ইসলাম জুয়েল (কাপ পিরিচ) ও আরিফুল ইসলাম হীরা (হেলিকপ্টার) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।

অপরদিকে, ভাইস চেয়ারম্যান পদে লড়ছেন সুলতান মাহমুদ বিপুল (টিউবওয়েল), শেখ জাহিদুর রহমান লাবু (বৈদ্যুতিক বাল্ব), শাহাজান কবির শিপলু (চশমা), কামাল খান পর্বত (তালা) ও মনিরুজ্জামান (উড়োজাহাজ)।

মহিলা ভাইস চেয়ারম্যান পদে বর্তমান ভাইস চেয়ারম্যান জ্যোৎস্না আরা মিলি (কলস), বাশিনূর নাহার ঝুমুর (ফুটবল) এবং শিল্পী খাতুন (হাঁস) প্রতিদ্বন্দ্বিতা করছেন।