এখনো সংস্কার হয়নি নির্মাণের ২ সপ্তাহ পর ভেঙে যাওয়া রাজশাহীর বাঘা উপজেলার সেই রাস্তা

রাজশাহীর বাঘা উপজেলার আড়ানী পৌরবাজারের পূর্বদিকের বাইপাস সড়ক নির্মাণের দুই সপ্তাহ পর ভেঙে যাওয়া সেই রাস্তা বৃহস্পতিবার পর্যন্ত সংস্কারের উদ্যোগ নেওয়া হয়নি।

৫ সেপ্টেম্বর রাস্তার অর্ধেকের বেশি অংশ ভেঙে যাওয়ায় চলাচলের অনুপযোগী হয়ে পড়েছে সেটি।

জানা যায়, আপেল মাহমুদের মোড় হতে তোজাম্মেল হকের ওষুধের দোকান পর্যন্ত এ রাস্তা তৈরি করা হয়। পরে পৌরসভার পক্ষ থেকে রাস্তা পাকাকরণ করা হয়। এ সময় একটি পুকুরপাড় বেঁধে পৌরসভার পক্ষে দুই সপ্তাহ আগে ২০০ মিটার রাস্তা নির্মাণ করা হয়। এর মধ্যেই রাস্তার অর্ধেকের বেশি অংশ দেবে ভেঙে গেছে। তবে পুকুরপাড় ঠিক রয়েছে।

এ পুকুরপাড়ের ওপর একটি বেসরকারি শিক্ষাপ্রতিষ্ঠান রয়েছে। এ রাস্তা দিয়ে ছাত্রছাত্রীদের স্কুলে যাতায়াত করতে হয়। বর্তমানে এসএসসি পরীক্ষা চলমান। এ রাস্তা দিয়ে শত শত শিক্ষার্থী ও অভিভাবক আড়ানী ফুলমননেছা বালিকা উচ্চ বিদ্যালয় ও আড়ানী সরকারি উচ্চ বিদ্যালয়কেন্দ্রে যাতাযাত করছে। এ ছাড়া আড়ানী ডিগ্রি কলেজ, মহিলা ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থীরা এ রাস্তা দিয়েই চলাচল করে। বর্তমানে এ রাস্তাটি অত্যন্ত ঝুঁকিতে রয়েছে।

এ বিষয়ে আড়ানী প্যারাগন কিন্ডারগার্টেনের পরিচালক সাইফুল ইসলাম নান্নু বলেন, রাস্তা ভেঙে যাওয়ার কারণে চলাচল করতে ভয় লাগছে। মূল রাস্তা যানজটের কারণে বাইপাস রাস্তা দিয়ে আড়ানী উচ্চ বিদ্যালয়, বালিকা বিদ্যালয়, মহিলা কলেজ, ডিগ্রি কলেজের শিক্ষার্থীরা বেশি চলাচল করে। রাস্তাটির অবস্থা বিপজ্জনক হয়ে পড়েছে।

রাস্তার ঠিকাদার শহিদুল ইসলাম বলেন, পুকুরপাড় বেঁধে রাস্তাটি সংস্কার করা হয়েছে। অতিরিক্ত বৃষ্টির কারণে এমন ঘটনাটি ঘটেছে। রাস্তাটির বিষয়ে পৌরসভার পক্ষ থেকে অবগত করা হয়েছে। রাস্তার নিচে পানি থাকায় কাজ করা যাচ্ছে না। পানি শুকিয়ে গেলে শিগগিরই রাস্তা ঠিক করে দেওয়া হবে।

এ বিষয়ে আড়ানী পৌর মেয়র মুক্তার আলী বলেন, রাস্তাটির বিষয়ে তাৎক্ষণিক ঠিকাদারকে অবগত করা হয়েছিল। ঠিকাদারকে এখনো বিল দেওয়া হয়নি।

Related Posts