একজন আটক হঠাৎ বিদ্যালয়ে ঢুকে ৫ শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত

একজন আটক হঠাৎ বিদ্যালয়ে ঢুকে ৫ শিক্ষার্থীকে ছুরিকাঘাত

গাইবান্ধার সাদুল্লাপুর উপজেলার জামালপুর বালিকা উচ্চ বিদ্যালয়ের পাঁচ শিক্ষার্থীকে বহিরাগত এক নারী ছুরিকাঘাত করেছে বলে জানা গেছে। সাদুল্লাপুর থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) মো. শফিকুল ইসলাম (শফিক) জানান, মঙ্গলবার (১১ জুন) সকাল সাড়ে ১০টার দিকে বিদ্যালয়ে ক্লাস চলাকালে এ ঘটনা ঘটে।

আঘাতে আহতদের মধ্যে তিন শিক্ষার্থীকে সাদুল্লাপুর উপজেলা স্বাস্থ্য কমপ্লেক্সে ভর্তি করা হয়েছে। তারা হলো– সেতু, মিতু ও রাবেয়া। তারা তিন জনই ওই বিদ্যালয়ের ষষ্ঠ শ্রেণির ছাত্রী। তাদের হাত, পিঠ, পা ও মাথায় জখম হয়েছে। আহত অপর দুই শিক্ষার্থীকে প্রাথমিক চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

এদিকে, এ ঘটনার পর স্থানীয়রা অভিযুক্ত ওই নারীকে আটক করে পুলিশে সোপর্দ করেছে। তার নাম জান্নাতি আকতার (২১)। সে সাদুল্লাপুর উপজেলার জামালপুর ইউনিয়নের গয়েশপুর গ্রামের আশিক মিয়ার স্ত্রী।

পুলিশ ও স্থানীয়রা জানান, বিদ্যালয়ে ক্লাস চলার ফাঁকে কয়েকজন শিক্ষার্থী বিদ্যালয়ের বারান্দায় বসে গল্প করছিল। সে সময় হঠাৎ এক নারী বিদ্যালয়ে ঢুকে ধারালো ছুরি দিয়ে তাদের আঘাত করে। পরে বিদ্যালয়ের অন্য শিক্ষার্থীসহ স্থানীয়রা এগিয়ে এসে ওই নারীকে আটক করেন। স্থানীয়রা কেউ কেউ তাকে মানসিক ভারসাম্যহীন বলে দাবি করেছেন।

সাদুল্লাপুর থানার ওসি জানান, খবর পেয়ে ঘটনাস্থল থেকে অভিযুক্ত ওই নারীকে আটক করে থানায় নিয়ে আসা হয়েছে। এ সময় তার কাছে একটি দেশি ধারালো ছুরি উদ্ধার করা হয়। তবে কেন এমন ঘটনা ঘটিয়েছে তা জানতে তাকে জিজ্ঞাসাবাদ করা হচ্ছে।