ইসি গঠনে চূড়ান্ত ১০ জনের নাম

নতুন প্রধান নির্বাচন কমিশনার (সিইসি) এবং অন্যান্য কমিশনার নিয়োগে ১০ জনের নাম চূড়ান্ত করেছেন সার্চ কমিটির সদস্যরা।

শেষ বৈঠকে মঙ্গলবার (২২ ফেব্রুয়ারি) এ তালিকা চূড়ান্ত করা হয়। সিদ্ধান্ত অনুযায়ী, আগামী বৃহস্পতিবার (২৪ ফেব্রুয়ারি) রাষ্ট্রপতি মো. আব্দুল হামিদের কাছে এ তালিকা পাঠানো। এই তালিকা থেকে একজন প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও ৪ জন কমিশনার চূড়ান্ত করবেন রাষ্ট্রপতি।

বৈঠক শেষে রাত ৮টার দিকে মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম সাংবাদিকদের এ তথ্য জানান। স্বাধীনতার পঞ্চাশ বছরেও নির্বাচন কমিশন গঠন নিয়ে কোন আইন ছিল না এদেশে। অবশেষে চলতি সংসদের সবশেষ অধিবেশনে উত্থাপনের পর বেশ কিছু সংশোধনী এনে পাশ হয় প্রধান নির্বাচন কমিশনার ও অন্যান্য কমিশনার গঠনে আইন। আইন অনুসারে, আপিল বিভাগের বিচারকের নেতৃত্বে গঠন করা হয় সার্চ কমিটি। কমিটির প্রথম বৈঠক শেষে রাজনৈতিক দল ও সমাজের সর্বোস্তর থেকে যোগ্য ব্যক্তির নাম চাওয়া হয়। আলোচনা করা হয় বিভিন্ন শ্রেণী পেশার প্রতিনিধি সঙ্গে। গত ১২ ও ১৩ ফেব্রুয়ারি বিশিষ্টজনদের মতামত নেয় সার্চ কমিটি। দুদিনের সভায় অধ্যাপক, গণমাধ্যমের শীর্ষ পর্যায়ের ব্যক্তি, সরকারি সাবেক কর্মকর্তা এবং সামরিক বাহিনীর সাবেক কর্মকর্তা, পেশাজীবী সংগঠনের নেতারাসহ বিভিন্ন পর্যায়ের বিশিষ্ট ব্যক্তিরা অংশ নেন।

এসব বৈঠকে সার্চ কমিটির কাছে প্রস্তাবিত ৩২২টি নাম প্রকাশ করা হয়। ১৪ ফেব্রুয়ারি রাতে মন্ত্রিপরিষদ বিভাগ থেকে এসব নামের তালিকা প্রকাশ করা হয়। আরও কয়েক দফা বৈঠকে নামের তালিকা সংক্ষিপ্ত করে কমিটি। মঙ্গলবার বিকেলে সাড়ে চারটায় সুপ্রিম কোর্টের জাজেজ লাউঞ্জে শেষ বারের মতো বৈঠকে বসে সার্চ কমিটি। প্রায় চার ঘণ্টার বৈঠক শেষে জানানো হয় চুড়ান্ত হয়েছে তালিকা। বৃহস্পতিবার রাষ্ট্রপতির কাছে এই তালিকা জমা দেবে সার্স কমিটি। সেখান থেকেই গঠন করা হবে নির্বাচন কমিশন। এর আগে গত ৫ ফেব্রুয়ারি রাষ্ট্রপতি মো. আবদুল হামিদ সার্চ কমিটি গঠন করেন। আইন অনুযায়ী কমিটিকে ১৫ কার্যদিবসের মধ্যে রাষ্ট্রপতির কাছে সুপারিশ পেশ করতে হবে। সাংবিধানিক জটিলতা না হলেও নুরুল হুদা কমিশনের মেয়াদ শেষ হওয়ায় ১৫ ফেব্রুআরি থেকে শূন্য রয়েছে সিইসিসহ নির্বাচন কমিশনের পদ।

Related Posts