ইসরায়েলের হামলা ফিলিস্তিনি ত্রাণপ্রত্যাশীদের ওপর , নিহত ১৯

ইসরায়েলের হামলা ফিলিস্তিনি   ত্রাণপ্রত্যাশীদের ওপর  , নিহত ১৯

ফিলিস্তিনের অবরুদ্ধ গাজা উপত্যকায় ত্রাণসহায়তার জন্য অপেক্ষারত বেসামরিক মানুষর ওপর হামলা চালিয়েছে ইসরায়েলি বাহিনী। এই হামলায় অন্তত ১৯ ফিলিস্তিনি নিহত হয়েছেন। শনিবার (২৩ মার্চ) গাজার স্বাস্থ্য মন্ত্রণালয় ও গণমাধ্যম দপ্তরের বরাত দিয়ে এসব তথ্য জানিয়েছে আলজাজিরা।

গাজার গণমাধ্যম দপ্তর এক বিবৃতিতে বলেছে, গাজা সিটির আল-কুয়েত গোলচত্বরের পাশে আটা ও ত্রাণের জন্য হাজারো মানুষ অপেক্ষা করলে ইসরায়েলি দখলদার বাহিনী গণহত্যা চালায়। এতে ১৯ জন নিহত এবং ২৩ জন বেসামরিক নাগরিক আহত হয়েছেন।

গাজার এসব ক্ষুধার্ত মানুষের ওপর ইসরায়েলি সেনাবাহিনী ও যুদ্ধট্যাংক মেশিনগান দিয়ে গুলি চালিয়েছে। এ সময় তারা আটা ও ত্রাণের বস্তার জন্য অপেক্ষা করছিলেন। তারা এমন এক জায়গায় অবস্থান করছিলেন যা কোনোভাবে ইসরায়েলি দখলদার বাহিনীর জন্য হুমকি সৃষ্টি করতে পারে না।

গাজার বেসামরিক প্রতিরক্ষা বিভাগের মুখপাত্র মাহমুদ বাসাল বলেছেন, সাধারণ মানুষের ওপর ব্যাপক হারে গুলি চালানো হয়েছে। আহতদের পাশের আহলি আরব হাসপাতালে নিয়ে যাওয়া হয়েছে।

তবে ইসরায়েলি হামলা ও অবরোধের কারণে গাজার স্বাস্থ্যসেবা ব্যবস্থা প্রায় ধসে পড়ার মতো অবস্থায় রয়েছে। তাই অনেক আহত মানুষকে খোলা আকাশের নিচে চিকিৎসা দেওয়া হয়েছে।

মাহমুদ বাসাল আরও বলেন, অনেকে খুব গুরুতর জখম হয়েছেন। বিশেষ করে যারা বন্দুকের শার্পনেলের আঘাতে আহত হয়েছেন। পরিস্থিতি খুবই বেদনাদায়ক, কঠিন ও চ্যালেঞ্জিং।

আলা আল-খুদারি নামে এক প্রত্যক্ষদর্শী আলজাজিরাকে বলেছেন, ছেলেমেয়েদের মুখে অল্প খাবার তুলে দেওয়ার জন্য এসব মানুষ এসেছিলেন। এ সময় ভিড়ের মধ্যে গুলি ছুড়তে থাকে ইসরায়েলি বাহিনী। এতে অনেক মানুষ নিহত হয়েছেন। আরও অনেক মানুষ আহত হয়েছেন।