ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে ভয়াবহ ড্রোন হামলা

ইউক্রেনের রাজধানী কিয়েভে বিমান হামলার সাইরেন বাজার পর পরই অন্তত ৪টি বিস্ফোরণের শব্দ শোনা গেছে। সোমবার স্থানীয় সময় সকাল ৭টার দিকে বিস্ফোরণগুলো ঘটে। তাৎক্ষণিকভাবে হতাহতের কোনো খবর পাওয়া যায়নি। খবর রয়টার্স ও আনাদোলুর।

কিয়েভের মেয়র ভিতালি ক্লিটচকো বলেছেন, হামলায় কেন্দ্রীয় শেভচেনকিভস্কি এলাকার আবাসিক ভবনগুলো ক্ষতিগ্রস্ত হয়েছে।

প্রেসিডেন্ট ভলোদিমির জেলেনস্কির দপ্তরের প্রধান কর্মকর্তা আন্দ্রি ইয়েরমাখ বলেছেন, আত্মঘাতী কামিকাজে ড্রোন দিয়ে হামলাগুলো চালানো হয়েছে।

ঠিক এক সপ্তাহ আগে সকালের ব্যস্ত সময়ে কিয়েভে আঘাত হেনেছিল রাশিয়ার ছোড়া কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র, ওই সময় দেশটিজুড়ে চালানো হামলায় ১৯ জন নিহত হন।

সামাজিক যোগাযোগমাধ্যম টেলিগ্রামে ক্লিটচকো লিখেছেন, শেভচেনকিভস্কি এলাকায় হামলাগুলো চালানো হয়েছে। গত সপ্তাহেও এখানে বেশ কয়েকটি ক্ষেপণাস্ত্র হামলা চালানো হয়েছিল।

উদ্ধারকারীরা ঘটনাস্থলে আছেন জানিয়ে তিনি স্থানীয় বাসিন্দাদের বোম্ব শেল্টারগুলোতে অবস্থান করার পরামর্শ দিয়েছেন।

টেলিগ্রামে ইয়েরমাখ বলেছেন, কামিকাজে ড্রোন দিয়ে হামলা চালানো হয়েছে এবং ‘যত দ্রুত সম্ভব’ ইউক্রেনের আরও বিমান প্রতিরক্ষাব্যবস্থা দরকার।

জানা গেছে, কামিকাজে ড্রোন ইরান রাশিয়াকে সরবরাহ করেছে। এসব ড্রোন লক্ষ্যবস্তুতে আঘাত হেনে বিস্ফোরণ ঘটানোর আগে কয়েক ঘণ্টা ধরে আকাশে অবস্থান নিয়ে থাকতে পারে। এর আগেও রাশিয়া এগুলো ব্যবহার করেছে বলে ইউক্রেন জানিয়েছে।

ইরান রাশিয়াকে এসব ড্রোন দেওয়ার কথা অস্বীকার করেছে। অপরদিকে রাশিয়া এ নিয়ে কোনো মন্তব্য করেনি।

Related Posts