আর্জেন্টিনাকে ২-১ গোলে হারিয়েছে সৌদি আরব যা বললেন আর্জেন্টিনার কোচ

আর্জেন্টিনার বিপক্ষে যেখানে লড়াই করাই ছিল বড় চ্যালেঞ্জ, সেই আর্জেন্টিনার বিপক্ষেই বিজয় কেতন ওড়ালো মধ্যপ্রাচ্যের দেশ সৌদি আরব। বিশ্বকাপ ইতিহাসের সবচেয়ে বড় অঘটনের তালিকায় নিজেদের নামটি লিখিয়ে নিল সৌদি।

এদিকে সৌদি আরবের কাছে নিজেদের প্রথম বিশ্বকাপ ম্যাচ হারের পর পরের দুই ম্যাচ জয়ছাড়া কোনো পথ খোলা নেই বলে মনে করছেন আর্জেন্টিনার হেড কোচ লিওনেল স্কালোনি। ম্যাচশেষে সংবাদ সম্মেলনে নিজের প্রতিক্রিয়ায় এমনটিই জানিয়েছেন তিনি।

বিশ্বকাপে সৌদি আরবের পর মেক্সিকো ও পোল্যান্ডের বিপক্ষেও মাঠে নামতে হবে মেসি-ডি মারিয়াদের। প্রথম ম্যাচের হতাশাকে ঝেড়ে ফেলে দলকে ঘুরে দাঁড়ানোর আহ্বান জানান স্কালোনি।

তিনি বলেন, ‘উঠে দাঁড়িয়ে এগিয়ে যাওয়া ছাড়া আর কোনো পথ নেই। এটা নিয়ে এত বিশ্লেষণও আমরা করতে চাই না। আজকের দিনটা হতাশার। তবে আমাদের মাথা উঁচু রাখতে হবে।’

কাতার বিশ্বকাপে ফেভারিট হিসেবেই মাঠে নেমেছিল ফিফা র্যাং কিংয়ের ৩ নম্বর দল আর্জেন্টিনা। স্কালোনির বিশ্বাস এক ম্যাচ হারে দলের ফেভারিট তকমা মুছে যায়নি।

তিনি যোগ করেন, ‘ম্যাচের আগে আমরা ফেভারিট হিসেবে নেমেছিলাম। এখনো তাই আছি। বিশ্বকাপে এমনটা হতেই পারে। যে বিষয়গুলো আমাদের পক্ষে যায়নি সেগুলো নিয়ে কাজ করতে হবে। দুটা ম্যাচ আছে। সেগুলোতে মরিয়া হয়ে খেলতে হবে আমাদের।’

ম্যাচে সৌদি আরবের অফসাইড ফাঁদে পড়ে ৩ গোল হাতছাড়া হয় আর্জেন্টিনার। দ্বিতীয়ার্ধে পিছিয়ে পড়ার পর তারা গোছানো ফুটবল খেলতে পারেনি। তার পরও স্কালোনি মনে করেন প্রস্তুতি বা পরিকল্পনার ঘাটতি ছিল না।

তিনি বলেন, ‘আমরা এর চেয়ে ভালো প্রস্তুতি নিয়ে এ টুর্নামেন্টে নামতে পারতাম না। ফুটবলের বিষয়টি এমনই। আর বিশ্বকাপ পুরো ভিন্ন একটা টুর্নামেন্ট। শুরুর ম্যাচ হেরেছি কিন্তু লড়াই করার জন্য আমাদের দুটো ম্যাচ বাকি।’

Related Posts