আফগানদের আশ্রয় দিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাব প্রত্যাখান বাংলাদেশের

আফগানদের আশ্রয় দিতে যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাব প্রত্যাখান বাংলাদেশের

মার্কিন সেনাদের জন্য কাজ করা আফগান নাগরিকসহ কয়েক হাজার মানুষকে বাংলাদেশে আশ্রয় দেয়ার অনুরোধ জানিয়েছিলো যুক্তরাষ্ট্র। তবে তাদের এ প্রস্তাব নাকোচ করেছে বাংলাদেশ। সোমবার রাতে পররাষ্ট্রমন্ত্রী গণমাধ্যমকে এ তথ্য নিশ্চিত করেছেন।

তিনি বলেন, প্রথমে ওয়াশিংটনে আমাদের রাষ্ট্রদূতের কাছে এবং পরে ঢাকায় মার্কিন রাষ্ট্রদূত কিছু আফগান নাগরিককে সাময়িকভাবে বাংলাদেশে আশ্রয় দেয়ার অনুরোধ জানায়। যুক্তরাষ্ট্র এ সময় জানায় তারা বাংলাদেশসহ কিছু বন্ধু দেশকে এ অনুরোধ জানিয়েছে। এরপর আমরা জানতে চেয়েছিলাম কোন কোন দেশকে তারা এ অনুরোধ জানিয়েছে। কত আফগান নাগরিককে কত দিনের জন্য রাখতে হবে। এ বিষয়ে তারা কোনো সদুত্তর দিতে পারেনি।

পররাষ্ট্রমন্ত্রী বলেন, এমনিতেই ১১ লাখ রোহিঙ্গাদের আশ্রয় দিয়ে বাংলাদেশ সমস্যা আছে। নতুন করে কোনো দেশের লোকজনকে আশ্রয় দেয়ার কোনো সুযোগ বাংলাদেশের নেই। তাই আমরা যুক্তরাষ্ট্রের প্রস্তাবটি নাকচ করে দিয়েছি।

এদিকে আজ দুপুরে নিজ দপ্তরে সাংবাদিকদের সঙ্গে আলাপকালে পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী শাহরিয়ার আলম বলেন, আফগানিস্তানে জনগণের মতামতের প্রতিফলন দেখতে চায় ঢাকা। দেশটির স্থিতিশীল সরকার সহযোগিতা চাইলে সাহায্যের হাত বাড়িয়ে দেবে বাংলাদেশ। তবে এই সময়ে দেশটিতে বাংলাদেশিদের ভ্রমণ না করার পরামর্শ দেয়া হয়েছে।

আফগানিস্তানে তালেবানের ক্ষমতা দখলের প্রেক্ষাপটের ওপর দৃষ্টি গোটা বিশ্বের। দেশটির চলমান পরিস্থিতি পর্যবেক্ষণ করছে ঢাকাও। পররাষ্ট্র প্রতিমন্ত্রী জানান, কোন দেশের অভ্যন্তরীণ বিষয়ে হস্তক্ষেপ করে না বাংলাদেশ। তাই দেশটিতে তালেবান ও অন্তর্বতী সরকারের কর্মকাণ্ডের ওপরই নির্ভর করবে দ্বিপাক্ষিক সম্পর্ক।

প্রতিমন্ত্রী বলেন, জঙ্গি ও সন্ত্রাসবাদ দমনে বাংলাদেশ যথেষ্ট সক্ষমতা অর্জন করেছে। তাই আফগানিস্তানে তালেবান উত্থানে বাংলাদেশের কোন ভীতি নেই। তারপরও শঙ্কা উড়িয়ে দেয়া যায় না মন্তব্য করে শাহরিয়ার আলম বলেন, এ বিষয়ে সর্তক রয়েছে আইনশৃঙ্খলা বাহিনী।

এদিকে, কূটনৈতিক বিশ্লেষকরা বলছেন, তালেবানদের বিষয় এখনই মন্তব্য করার সময় হয়নি। তাদের গতিবিধি দেখে বাংলাদেশকে সিদ্ধান্ত নিতে হবে।

পররাষ্ট্র মন্ত্রণালয় জানিয়েছে, আফগানিস্তানের কাবুলে অবস্থানরত বাংলাদেশিদের সরিয়ে আনা হচ্ছে। কেউ সেখানে আটকা পড়লে পাশ্ববর্তী দেশ তাজিকিস্তানের বাংলাদেশ দূতাবাসে যোগাযোগ করতে বলা হয়েছে।

নিজস্ব প্রতিবেদক