আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো ইজতেমা

বগুড়ার ধুনটে মানবজাতির শান্তি কামনায় আখেরি মোনাজাতের মধ্য দিয়ে শেষ হলো ইজতেমা। আখেরি মোনাজাতে অংশ নিতে ইছামতি নদী তীরের পূর্ব ভরনশাহী ইজতেমা ময়দানে শনিবার (২৫ ডিসেম্বর) সকাল থেকে হাজারো মানুষের ঢল নামে।

ইজতেমা ময়দান পূর্ণ হওয়ার পর রাস্তা ও আশপাশের বাড়ির যে যেখানে জায়গা পেয়েছেন সেখান থেকেই মোনাজাতে অংশ নেন। দুপুর ১২টায় আখেরি মোনাজাত শুরু হয়। শেষ হয় ১২টা ২৬ মিনিটে। মোনাজাত পরিচালনা করেন কাকরাইলের মুরব্বি হযরত মাওলানা আব্দুল মতিন। ২৬ মিনিটের এ মোনাজাতে নিজেদের গুনাহ মাফ এবং বিশ্বের মানবজাতির শান্তি ও কল্যাণ কামনা করা হয়। এসময় মুসল্লিদের আমিন, আল্লাহুম্মা আমিন ধ্বনিতে মুখরিত হয়ে ওঠে ইজতেমা ময়দান। এর আগে প্রতিদিন ফজর, যোহর, আছর ও মাগরিব নামাজের পর ইজতেমা ময়দানে আগত মুসল্লিদের উদ্দেশে কাকরাইল মসজিদ, বগুড়া মার্কাজ মাদরাসাসহ বিভিন্ন জায়গার মুরব্বিরা বয়ান পেশ করেন। তিন দিনের এ ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়েছে ঢাকা কাকরাইল মসজিদের আলমী শুরার তত্ত্বাবধানে। ইজতেমা আয়োজক কমিটির শুরা সদস্য খোরশেদ আলম বলেন, সুশৃঙ্খল পরিবেশে ইজতেমা অনুষ্ঠিত হয়েছে। ইজতেমা থেকে ১০টি চিল্লার জামাত তৈরি করা হয়েছে। টঙ্গীর বিশ্ব ইজতেমা সফল করার লক্ষ্যে চিল্লার জামাতের মুসল্লিরা ইসলামের দাওয়াতি কাজে দেশজুড়ে ছড়িয়ে পড়বেন। ধুনট থানার ভারপ্রাপ্ত কর্মকর্তা (ওসি) কৃপা সিন্ধু বালা জানান, পুলিশ কন্ট্রোল রুমসহ ইজতেমা ময়দানে আইন শৃঙ্খলা রক্ষায় পুলিশ সদস্যরা নিয়োজিত ছিলেন। কোনো অপ্রীতিকর ঘটনা ছাড়াই ইজতেমা শেষ হয়েছে।

Related Posts