অর্ধেক বাস চলার সিদ্ধান্ত ‘জানেন না’ সড়ক পরিবহন মন্ত্রী

১১ আগস্ট থেকে অর্ধেক গণপরিবহন চলার সিদ্ধান্ত আলোচনা করে নেওয়া উচিত ছিল। এমনটাই বলেছেন খোদ সড়ক পরিবহন ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের। আর মন্ত্রিপরিষদ সচিব বললেন, ঢাকা ও চট্টগ্রামে একসাথে বেশি গাড়ির প্রবেশ ঠেকাতেই নেওয়া হচ্ছে এ সিদ্ধান্ত। এ অবস্থায় গণপরিবহন কম চললে যাত্রীদের চাপে সংক্রমণ ঝুঁকি আরও বাড়ার আশঙ্কা করছেন পরিবহন সংশ্লিষ্টরা।

রাজধানীতে গণপরিবহন সংকটে স্বাভাবিক সময়েই ভুগতে হয় খেটে খাওয়া মানুষকে। ঘণ্টার পর ঘণ্টা অপেক্ষাতেও মেলে না কাঙ্ক্ষিত বাহন। রোববার (০৮ আগস্ট) কঠোর বিধিনিষেধ শিথিলের প্রজ্ঞাপনে বলা হয়, বাসে শতভাগ আসনে যাত্রী বসলেও মোট সংখ্যার অর্ধেক বাস চলবে রুটগুলিতে। পরিবহন সংশ্লিষ্টরা বলছেন, এক সিট ফাঁকা রেখেও যাত্রী ভিড় সামলানো যায়নি। সবকিছু খুলে দেওয়ার পর গণপরিবহনের সংখ্যা কমালে মানুষের চাপে সংক্রমণ ঝুঁকি আরও বাড়ার আশঙ্কা তাদের।
 পরিবহন নেতারা বলেন, অর্ধেক পরিবহন চলে তাহলে বাকী অর্ধেক শ্রমিক কি না খেয়ে মারা যাবে? প্রাইভেট কারে গাদাগাদি করে মানুষ নেয়, সেসময়ে করোনা হয় না। শুধু বাস চললে করোনা হয়। স্থানীয় প্রশাসন ও পরিবহন মালিক-শ্রমিক কর্তৃপক্ষকে তদারকির দায়িত্ব দেওয়া হলেও পরিবহন মালিকরা বলছেন, কবে কোন বাস চলবে তা নির্ণয় করা প্রায় অসম্ভব।
ঢাকা সড়ক পরিবহন মালিক সমিতির সাধারণ সম্পাদক খন্দকার এনায়েত উল্লাহ বলেন, সারা দেশে হাজার হাজার বাসমালিক রয়েছেন। এদের মধ্যে কেউ আছেন একটি বাসের মালিক। এটা আমরা কীভাবে নির্ণয় করবো কার কয়টা গাড়ি আছে। এটা করা অসম্ভব। একই সঙ্গে যাত্রীদের চাপ বাড়বে এবং সংক্রমণ বাড়বে।
এদিকে এমন সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে আলোচনা করা দরকার ছিল বলে মনে করেন সড়ক পরিবহন মন্ত্রী। আর মন্ত্রিপরিষদ সচিব বললেন, ঢাকা ও চট্টগ্রামে এক সাথে বেশি গাড়ির প্রবেশ ঠেকাতেই নেয়া হচ্ছে এ সিদ্ধান্ত।
মন্ত্রিপরিষদ সচিব খন্দকার আনোয়ারুল ইসলাম বলেন, অন্তত কিছুদিন জেলাপর্যায়ে ডিসি, এসপি, পরিবহনমালিক ও শ্রমিকদের সঙ্গে বসে যত বাস আছে, তার অর্ধেক চালাতে আইনশৃঙ্খলা রক্ষাকারী বাহিনীর পক্ষ থেকে পরামর্শ দেওয়া হয়, যাতে বাইরে থেকে চাপ কম হয়। একসঙ্গে বেশি গাড়ি ঢাকা বা চট্টগ্রামে ঢুকতে না পারে। এটি স্থানীয় প্রশাসনের ওপর ছেড়ে দেওয়া হয়েছে। প্রত্যেক স্থানীয় প্রশাসন এটা ঠিক করবে।
 
আওয়ামী লীগের সাধারণ সম্পাদক ও সেতুমন্ত্রী ওবায়দুল কাদের বলেন, সড়কে অর্ধেক গাড়ি নামানোর সিদ্ধান্ত নেওয়ার আগে সড়ক পরিবহন ও সেতু মন্ত্রণালয়ের সঙ্গে কথা বললে ভালো হতো।
 এক আগে এক সিট ফাঁকা রেখে ৬০ শতাংশ ভাড়ায় বাস চললেও ১১ আগস্ট থেকে আগের ভাড়ায় চলবে গণপরিবহন।

Related Posts